যৌন সচেতনতা লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান
যৌন সচেতনতা লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান

মঙ্গলবার, ৩ এপ্রিল, ২০১৮

মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি দূর করার চিকিৎসা আছে - জানেন কি ?

মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি দূর করার চিকিৎসা আছে - এই সত্যটি এই আধুনিক জ্ঞান বিজ্ঞানের যুগেও অনেক শিক্ষিত তরুণরাও জানে না। এর প্রধান কারণ হলো তরুণরা যখন এই সমস্যায় আসক্ত হয়ে পড়ে অর্থাৎ এটি না করে একদিনও থাকতে পারে না তখন এর ট্ৰিটমেন্টের জন্য তারা এলোপ্যাথি ডাক্তারদের কাছে যায়। অথচ পুরু এলোপ্যাথি চিকিৎসা শাস্ত্রে স্ত্রীরোগ এবং পুরুষের যৌনরোগেরই কার্যকর কোন চিকিৎসা নাই। আর এই কারণে এই সকল সমস্যায় স্বয়ং এলোপ্যাথি ডাক্তারগণও হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা নিয়ে থাকে। কিন্তু তাদের কাছে সেই একই রোগ নিয়ে গেলে তারা কয়েকযুগ আগের মেডিক্যাল থিওরি (বর্তমানে অকার্যকর) শুনিয়ে রোগীদের বুঝিয়ে টাকাটা ঠিকই নিয়ে নেয়। কিন্তু সমস্যাটি নির্মূলের জন্য আদৌ কোন কার্যকর ট্রিটমেন্ট দিতে পারে না।

এলোপ্যাথিতে মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুন আসক্তির চিকিৎসা 

মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি নিয়ে যখন কোন তরুণ এলোপ্যাথি ডাক্তারদের কাছে যায় তখন তারা সরাসরি এর চিকিৎসা দেয় - আপনি বিয়ে করুন অথবা এক গাদা অকার্যকর নিয়ম কানুন ধরিয়ে দিয়ে বলে এই গুলি মেনে চলুন, অথচ  হস্তমৈথুনের আসক্তির অবস্থায় এই সব নিয়ম কানুন প্রায় সবই অকার্যকর সেটা তারা নিজেরাই জানে। অনেক ডাক্তার এই যুগেও এটিকে সরাসরি মানুসিক রোগ বলেই চালিয়ে দেয়। অথচ শরীরে যেকোন রোগ হলে সেটা মন মানুষিকতার উপর প্রভাব ফেলবে সেটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। যেমন ধরুন আপনার জ্বর আসল, জ্বর আসলে আপনার মন মানুষিকতাও ভালো থাকবে না এটাই স্বাভাবিক কিন্তু জ্বর তো আর মানুষিক রোগ নয়।
মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি দূর করার চিকিৎসা আছে - জানেন কি ?
এলোপ্যাথি ডাক্তাররা যখন দেখলো সারা বিশ্বে কোটি কোটি তরুণ শুধুমাত্র হোমিও চিকিৎসার মাধ্যমেই মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি থেকে মুক্তি পাচ্ছে এখন তারা বলে বিয়ে করে ফেলুন। বাহ্ কি চমৎকার চিকিৎসা !! এখন এলোপ্যাথি ডাক্তারেরদের সেই সব ভুয়া কথাবার্তা জনগণ আর খায় না। কারণ মানুষ বাস্তব প্রমানকেই গুরুত্ব দিবে এটাই স্বাভাবিক।

হোমিওপ্যাথিতে মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুন আসক্তির চিকিৎসা 

আপনি এই আধুনিক জ্ঞান বিজ্ঞানের যুগেও দেখবেন - অনেক কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষিত নামধারী কিছু মূর্খ রয়েছে যারা ইন্টারনেট সার্চ করে এলোপ্যাথদের আদি যুগের কিছু থিওরী টেনে বলবে মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি দূর করার কোন ঔষধ নেই। এটা একটা পাগলের প্রলাপ ছাড়া আর কিছুই নয়।
আধুনিক হোমিওপ্যাথির ডাক্তার হাসান-ই প্রায় ২০ হাজারের বেশি  তরুণদের প্রপার ট্রিটমেন্ট দিয়ে তাদের মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি দূর করেছেন। যদি ঔষধ না থাকতো তাহলে তিনি সেটা করলেন কি করে ?
একটা বিষয় আমাদের ভুলে গেলে চলবে না - আল্লাহ পাক যেমন রোগ দিয়েছে তার চিকিৎসাও দিয়ে রেখেছেন। হয়তো সেটা, এলোপ্যাথিতে না থাকলে হোমিওপ্যাথিতে আছে বা আয়ুর্বেদ বা অন্য কোন চিকিৎসা শাস্ত্রে রয়েছে। কিন্তু আপনি একটি ছাড়া বাকিগুলি বিশ্বাসই করলেন না - এটা আপনার দোষ, আল্লাহ পাকের কোন দোষ নেই। আর শেষ বিচারের দিন আল্লাহকে কেউ এই কারণেই দোষ দিতে পারবে না।

এদেশে চিকিৎসার কিছু বাস্তবরূপ 

আরেকটি বিষয় হলো - কিছু দিন আগে দেশের একজন নামকরা ডার্মাটোলোজিস্টকে বলতে শুনেছি যে - এই দেশের অনেক বড় বড় হাসপাতালে চাকরি করেন এমন অনেক বড় মাপের ডাক্তারদের ৬০% ই নাকি হাতুড়ে চিকিৎসক। অর্থাৎ নানা প্রভাব খাটিয়ে চাকরী নেয় এবং প্রমোশন নেয় কিন্তু রোগীকে যেখানে যে চিকিৎসা দেয়া দরকার সেখানে সেই প্রপার ট্রিটমেন্টটা তারা দিতে পারে না। তাই রোগীরা সুস্থ না হয়ে একবার এই ডাক্তার আরেকবার ঐ ডাক্তার এই ভাবে ঘুরতে ঘুরতে একসময় মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে এসে একজন হোমিও চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হন অথবা চিকিৎসা নিতে বিদেশ চলে যান । যাই হোক, এটা হলো এ দেশের বড় বড় এলোপ্যাথি ডাক্তারদের অবস্থা। তাহলে আরো যারা আছেন, যারা ফাঁস প্রশ্নপত্র দিয়ে মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হন এবং ঔষধ কোম্পানির তৈরী করা লেকচার শীট মুখুস্ত করে করে ডাক্তারি পাশ করেন তাদের অবস্থা কোথায় একবার ভেবে দেখুন। দেশের বাহিরে কি রোগীরা চিকিৎসা নিতে এমনি এমনি যায় ??

হোমিওতে পাশ করা আর চিকিৎসা দেয়া এক জিনিস নয়

ও হ্যা, আপনার এটাও জানা দরকার, আমাদের দেশে যেখানে এলোপ্যাথির এই অবস্থা সেখানে হোমিওপ্যাথির কি অবস্থা হতে পারে একবার ভেবে দেখুন। মেডিক্যাল কলেজ থেকে পাশ করা বহু হোমিও ডাক্তার রয়েছে যারা চিকিৎসাই দিতে জানে না। কারণ হোমিওতে পাশ করা আর চিকিৎসা দেয়া এক জিনিস নয়। অথচ হোমিওপ্যাথিই একমাত্র চিকিৎসা বিজ্ঞান যেখানে সর্বাধিক রোগের পারফেক্ট ট্রিটমেন্ট রয়েছে। রোগ যদি ভালো না হয় সেটা ডাক্তারের দোষ, ডাক্তার পরিবর্তন করুন। তবে এটাও আপনার মনে রাখা উচিত অনেক অভিজ্ঞ হোমিও ডাক্তারও যদি ১০০/২০০ টা ট্রিটমেন্ট দেয় তার ক্ষেত্রেও ২/১টি ট্রিটমেন্ট ফল করা অস্বাভাবিক কিছু নয় কারণ সে ফেরেস্তা নয় সেও মানুষ।

ভালো হোমিও ডাক্তার চিনবেন কিভাবে 

যখন কোন হোমিওপ্যাথি ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নিতে যাবেন তখন আপনি যদি দেখেন সে আপনাকে হারবালদের মতো পেটেন্ট ঔষধ বা ডিব্বা, হালুয়া ধরিয়ে দিচ্ছে তখন বুঝবেন সে হোমিও ডাক্তার নামের কলঙ্ক। সে আপনাকে কিছু দিনের জন্য উপশম করতে পারবে কিন্ত স্থায়ী ভাবে আরোগ্য করতে পারবে না। গুরু হ্যানিম্যান এই প্রকারের হোমিও ডাক্তারকে জারজ বলে অভিহিত করেছেন। বাংলাদেশের অনেক হোমিও ঔষধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি হার্বালদের সাথে প্রতিযোগিতা দিতে গিয়ে হোমিও নাম দিয়ে সেই প্রকার ঔষধ বানিয়ে চলছে। আর যে সব ডিগ্রীধারী হোমিও ডাক্তাররা চিকিত্সা দিয়ে জানে না তারাই ঐসব ঔষধ দিয়ে তাদের ফার্মেসী ভরে রাখে। তাদের পরিহার করুন। এই সকল হোমিও ডাক্তাররা মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের আসক্তি কেন কোন রোগেরই প্রপার ট্রিটমেন্ট দিতে জানে না। আর এ ক্ষেত্রে লোকজন ডাক্তারকে দোষ না দিয়ে উল্টো হোমিওপ্যাথিকে দোষ দেয়।

 মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুনের ক্ষতি‬

অনেক পুরুষ অতিরিক্ত হস্তমৈথূন্য জনিত কারনে তাদের লিঙ্গে দুর্বলতা অনুভব করেন। এটার প্রধান কারন অল্প বয়সে হস্তমৈথূন্য শুরু করা। যারা অল্পবয়সে হস্তমৈথূন্য করেন তারা বিয়ের পর সংসার জীবনে নানান জটিলতায় ভুগে থাকেন। এমনকি অল্পবয়সে হস্তমৈথূন্যের ফলে লিঙ্গের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ব্যহত হয় বলে লিঙ্গের আকার ছোট থেকে যেতে পারে।

অতিরিক্ত হস্তমৈথূন্যের ফলে শক্তি হ্রাস সহ নানাবিধ শারীরিক সমস্যায় ভোগেন। তার মধ্যে উল্ল্যেখযোগ্য হল:
  • শাররীক ব্যথা এবং মাথা ঘোরা। 
  • যৌন ক্রিয়ায় সাথে জড়িত স্নায়তন্ত্র দুর্বল করে দেয় অথবা ঠিক মত কাজ না করার পরিস্থতি সৃষ্টি করে
  • শরীরের অন্য অঙ্গ যেমন হজম প্রক্রিয়া এবং প্রসাব প্রক্রিয়ায় সমস্যা সৃষ্টি করে
  • দৃষ্টি শক্তি দুর্বল করে দেয় এবং মাথা ব্যাথা সৃষ্টি করে
  • হৃদকম্পনে দ্রুততা আসে এবং অনেকে নার্ভাস ফিল করতে পারেন
  • ব্যক্তি কোনো কঠিন শারীরিক বা মানসিক কাজ এর অসমর্থ।  তিনি সাধারণত নির্জনতায় থাকতে চেষ্টা করে এবং তার জ্ঞান বৈকল্য হয়। 
  • দ্রুত বীর্যস্থলনের প্রধান কারন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন্য।
  • প্রায় প্রতি তিনজনের একজন পুরুষ যারা অতিরিক্ত হস্তমৈথুন্য করেন তারা নারী সঙ্গীর সাথে শারীরিক মিলনের সময় লিঙ্গথ্থান বা ইরিটিক্যাল ডিসফাংশান সমস্যায় ভোগেন। 
তাই কারো এই সমস্যা থাকলে অতি দ্রুত রেজিস্টার্ড এবং অভিজ্ঞ একজন হোমিও চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করে প্রপার ট্রিটমেন্ট নিন। দেখবেন মন থেকে এই আসক্তি দূর হয়ে গেছে এবং  মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুন সংক্রান্ত যাবতীয় কুফলও দূর হয়ে গেছে।
বিস্তারিত

শুক্রবার, ৭ আগস্ট, ২০১৫

তরুণদের মাঝে দিন দিন যৌন অক্ষমতা ও যৌন বিকৃতি বাড়ছে !! কিন্তু কেন ?

আজকাল ইন্টারনেটে, ফেইসবুকে নানা প্রকার অশ্লীল বা চিত্তাকর্ষক যৌন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে (পুরুষাঙ্গ বড় করা, মিলনে সময় বৃদ্ধি করার) লোভ দেখিয়ে মারাত্মক ক্ষতিকর উত্তেজক জাতীয় ঔষধ বিক্রির মাধ্যমে কিছু প্রতারক তরুনদের যৌন বিকৃতি এবং দিন দিন যৌন ক্ষমতায় অক্ষম করে তুলছে।

মনে রাখবেন এই সকল যৌন উত্তেজক ঔষধ পুরুষদের যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধিতে কোনো ভুমিকাই পালন করে না। কিছু সময়ের জন্য উত্তেজনা সৃষ্টি করে মাত্র। ......যা আপনার মধ্যে যৌন বিকৃতি সৃষ্টি করবে এবং এক সময় আপনাকে যৌন ক্ষমতায় পুরুপুরি অক্ষম করে তুলবে।
তরুণদের মাঝে দিন দিন যৌন অক্ষমতা ও যৌন বিকৃতি বাড়ছে !! কিন্তু কেন ?
সাবধান !!!!!! ইন্টারনেটে, ফেইসবুকে যৌন রোগের (পুরুষাঙ্গ বড় করা, মিলনে সময় বৃদ্ধি করার) নাম করে বিজ্ঞাপন দেয়া এই সকল প্রতারকদের পাল্লায় পরবেন তো ধ্বংস হয়ে যাবেন। খুব অল্প বয়সেই আপনি আপনার যৌবন হারাবেন। একটি কথা মনে রাখবেন, ন্যাচারাল পুরুষাঙ্গ কখনোই বড় করা যায় না। যারা এই সকল বিজ্ঞাপন দেয় তারা আপনার দুর্বল মানসিক অবস্থার সুযোগ নিয়ে আপনার সাথে প্রতারণা করছে মাত্র। অথচ পুরু ক্ষতিটা আপনারই হচ্ছে। তাই, যে সকল প্রতারক কমলমতি তরুনদের লোভ দেখিয়ে বিভ্রান্ত করছে এবং তাদের ক্ষতি করে যাচ্ছে তাদের থেকে সাবধান হোন ।

হারবাল, কবিরাজি, ইউনানী, ন্যাচারাল ইত্যাদির নাম দিয়ে যারাই আপনাকে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাওয়ার কথা বলবে, মনে রাখবেন আপনি প্রতারিত হচ্ছেন। আজকাল হারবাল, কবিরাজি, ইউনানী, ন্যাচারাল এই শব্দগুলি যৌন উত্তেজক ঔষধ বিক্রি করার ক্ষেত্রে একটি ফেশন হয়ে দাড়িয়েছে। অথচ এই সকল উত্তেজক ঔষধগুলির অধিকাংশতেই মাদক মেশানো হয় যা কিছু সময়ের জন্য দ্রুত উত্তেজনার সৃষ্টি করে থাকে। কিন্তু এর সুদূর প্রসারী ফলাফল অনেক ভয়ানক। এক সময় আপনি দূরারোগ্য কিডনি এবং লিভার রোগে আক্রান্ত হবেন যা আপনার মৃত্যু ডেকে আনার জন্য যথেষ্ট।

তবে একথা সত্য যে বিশুদ্ধ আয়ুর্বেদ >> এক্ষেত্রে ভালো কাজ করে কিন্তু এগুলিও তাৎক্ষণিক উত্তেজনা সৃষ্টি করে না আর দেশের আয়ুর্বেদিক কোম্পানীগুলি তাদের সুনাম ধরে রাখার জন্য ভাল মানের ঔষধ প্রস্তুত করে থাকেন। তাই এ দেশে আয়ুর্বেদ আজও জনপ্রিয়। তবে স্ত্রীরোগ এবং পুরুষদের যৌন সংক্রান্ত যেকোন সমস্যা স্থায়ী ভাবে নির্মূলে হোমিওপ্যাথি সমগ্র বিশ্বে সর্বশ্রেষ্ঠ আসন দখল করে আছে।

মনে রাখবেন, যৌনশক্তি বৃদ্ধির জন্য কোনো প্রকার ঔষধ খাওয়ার প্রয়োজন নেই। একবার চিন্তা করুন, ছোট থেকে আপনি যৌবনে প্রদার্পন করলেন কোন সময় এই সকল ঔষধ খাওয়ার দরকার পড়ে নাই, আর তখন আপনার যৌনশক্তি ঠিকই ছিল, অথচ এই সকল প্রতারকদের বিজ্ঞাপন দেখেই আপনার যৌন শক্তির ঔষধ খেতে মন চাইল। কেন ?? সাবধান !!

তবে এটা ঠিক বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সচেতনতার অভাবে মানুষের শরীরে নানা প্রকার রোগ বাসা বাধতে থাকে এবং তার সাথে সাথে মানুষের জীবনী শক্তিও কমতে থাকে যা মানুষকে যৌনতায় দুর্বল করে তুলে। কিন্তু এর জন্য যদি আপনি যৌন উত্তেজক ঔষধ খেতে থাকেন তাহলে আপনি আরো মরলেন। এটা আদৌ দরকার নেই। মনে রাখবেন যৌন শক্তিটাও আপনার শরীরেরই একটি অংশ। তাই আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার শারীরিক ফিটনেস ঠিক আছে কিনা ? নিয়মতান্ত্রিক জীবনযাপন করেন কিনা ? সারাদিন কাজ করে শরীরের যে পরিমান ক্ষয় করেন সেই পরিমান শক্তি পূরণের জন্য পর্যাপ্ত সুষম খাদ্য গ্রহণ করেন কিনা ?

আপনি যদি নিয়মিত হাটেন এবং শরীরে কোনো প্রকার রোগকে বাসা বাধতে না দেন, নিয়মিত দুধ, ডিম, মধু এবং অন্যান্য পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ করেন, তাহলে মনে রাখবেন আপনি কখনই যৌন দুর্বলতায় ভুগবেন না। এটা প্রমানিত সত্য এবং বাস্তব কথা।

সব শেষে একটি কথা..... যৌনতা নিয়ে এত চিন্তা করার দরকার নেই। আপনি আপনার কাজে কর্মে মনোযোগী হন। আপনার যৌন সংক্রান্ত কোন প্রকার সমস্যা হলে অভিজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন। এক্ষেত্রে হোমিও হলে সবচেয়ে ভালো। কিন্তু বিজ্ঞাপন দেখে লোভে পড়ে নিজে নিজে যৌন উত্তেজক ঔষধ কিনে খেয়ে খেয়ে আপনার যৌন জীবন বিপর্যস্থ করে তুলবেন না। কারণ এইগুলি খেতে থাকলে কিডনি, লিভার ইত্যাদি বিকল হতে থাকবে এবং এক সময় তা আপনার মৃত্যু পর্যন্ত ডেকে আনবে।
বিস্তারিত

মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০১৫

আপনার পুরুষাঙ্গ কি ছোট? বিজ্ঞানীদের নতুন বিষ্ময়কর তথ্য!

ব্রিটিশ জার্নাল অব ইউরোলজিতে সম্প্রতি এক রিসার্চের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে, যা রীতিমতো চমকপ্রদ এবং মানব ইতিহাসে বিজ্ঞান ও চিকিৎসা শাস্ত্রে নতুন এক তথ্য সন্নিবেশিত হবে সন্দেহ নেই। ব্রিটিশ জার্নাল অব ইউরোলজিতে এম আই নরমাল.... শিরোনামে বিস্তর গবেষণা ধর্মী এক রিসার্চ এর ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।
বিস্তারিত

বুধবার, ১০ জুন, ২০১৫

লোভে পড়ে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাবেন না, যৌন ক্ষমতায় অক্ষম হয়ে যেতে পারেন।

রাস্তাঘাটে চলতে ফিরতে এই রকম ডায়ালগ হরহামেশাই আপনার কানে আসবে, অথবা এই রকম পোস্টার  দেয়ালে দেয়ালে চোখে পড়বে -  আপনি কি দাম্পত্য জীবনে অসুখী ? লিঙ্গ ছোট, নিস্তেজ, দূর্বল, স্ট্রং হয় না, ১-২ মিনিটে বীর্যপাত হয়ে যায়? যে সমস্ত ভাইরা দীর্ঘ দিন বিদেশ থাকার সময়ে বিভিন্ন খারাপ অভ্যাস এর কারনে যৌন শক্তি নষ্ট করে ফেলেছেন, স্ত্রীর নিকট লজ্জা পাচ্ছেন বা বিয়ে করতে ভয় পাচ্ছেন ? যৌন রোগ, লিঙ্গ সমস্যা, শুক্রমেহ, স্বপ্নদোষ ও দ্রুত বীর্যপাত এর চিকিৎসা, পুরষ লিঙ্গ লম্বা/মোটা, স্ট্রং করতে চান ? যৌন শক্তি বৃদ্ধি করে এক রাতে ২/৩ বার মিলন করতে চান ? বীর্য গাড় করে প্রসাবে ধাতু ক্ষয় দূর করতে চান ? 
লোভে পড়ে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাবেন না, যৌন ক্ষমতায় অক্ষম হয়ে যেতে পারেন।
হারানো যৌবন পুনুরুদ্ধার করে নারী কে সন্তুষ্ট করতে চান ? অল্প উত্তেজনায় যাদের লিঙ্গের মাথায় লালা চলে আসে এবং আপনারা যারা পুরুষত্ব হিনতা, জন্ডিস, অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ, অসময়ে বীর্য পাত, মেয়েদের সাদা স্রাব, লিঙ্গের আগা মোটা গোরা চিকন ও অন্যান্য যৌন রোগের সঠিক সমাধান পেতে চান তারা আজই যোগাযোগ করুন.......

এই সকল ভুয়া বিজ্ঞাপন দিয়ে হর হামেশাই প্রতারিত করা হচ্ছে তরুণ যুবকদের। ডাক্তার নামধারী এক শ্রেনীর অসাধু লোক হারবাল ইউনানী চিকিৎসার নাম করে যৌন রোগের ভয় দেখিয়ে কোমলমুতি যুবকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা। অথচ দেখা যায় অনেকের কোনো প্রকার সমস্যা পর্যন্ত থাকে না। আবার কারো কারো সমস্যা থাকলেও এটা খুব সামান্য যা প্রপার হোমিও ট্রিটমেন্ট নিলে অল্প দিনের মধ্যে চিরতরে দূর হয়ে যায়। 
কিন্তু এক শ্রেনীর হারবাল ইউনানী নামধারী ভূয়া চিকিৎসক তরুনদেরকে যৌন রোগের ভয় দেখিয়ে বছরের পর বছর ধরে উত্তেজক ঔষধ খাওয়াতে থাকে। যা এক সময় ভয়ঙ্কর ক্ষতি ডেকে আনে। অনেকে যৌন ক্ষমতায় অক্ষম পর্যন্ত হয়ে পড়েন, কেউ কেউ আবার লিভার এবং কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়। তাই রাস্তা-ঘাট এবং ফুটপাত থেকে লোভে পড়ে এবং কানভাসারদের কথায় মুগ্ধ হয়ে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। যদি আপনি প্রকৃতই কোনো সমস্যা অনুভব করে থাকেন তাহলে রেজিস্টার্ড এবং অভিজ্ঞ কোনো হোমিওপ্যাথি ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে যথাযথ ট্রিটমেন্ট নিন। 
উপরের ছবি গুলির মত দৃশ্য রাস্তাঘাটে চলতে গেলে সব সময়ই চোখে পড়ে। এক শ্রেনীর কিছু অসাধু লোক ডাক্তার সেজে শুধু মাত্র যৌন রোগেরই চিকিৎসা দিয়ে বেড়ায়।  অথচ বাংলাদেশের আইনে কেনভাস করে চিকিৎসা দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ। কিন্তু দেখা যায় অনেক যুবকরা লোভে পড়ে অথবা তাদের কথামালায় মুগ্ধ হয়ে এই সব মাদক শ্রেনীর যৌন উত্তেজক ঔষধ খেয়ে খেয়ে অকালেই তাদের যৌন ক্ষমতায় হারাচ্ছে। কেউ কেউ আবার বিরূপ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার শিকার হচ্ছেন। তাই হারবাল-ইউনানী নামধারী রাস্তা ঘাটের যৌন উত্তেজক ঔষধ ক্রয় করা থেকে বিরত থাকুন। সুখী  ও আনন্দময় যৌন জীবন লাভ করুন।
বিস্তারিত

সোমবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৪

ভায়াগ্রা সেবনে পুরুষাঙ্গ গেল কলম্বিয়ান ব্যক্তির

আমরা বরাবরই বলি পুরুষদের যৌন দুর্বলতার পেছনে কোন না কোন কারণ বিদ্যমান থাকে যা প্রপার হোমিও ট্রিটমেন্ট এর মাধ্যমে দূর করা যায়। কিন্তু দেখা গেছে অনেকেই তাদের যৌন সমস্যায় যথাযথ হোমিও ট্রিটমেন্ট না নিয়ে প্রতিবার যৌন মিলনের পূর্বে নানা প্রকার উত্তেজক ঔষধ সেবন করে থাকে। ফলশ্রুতিতে নিজের অজান্তেই তারা ভয়াবহ ক্ষতি ডেকে আনছে।
বিস্তারিত

শুক্রবার, ২৮ নভেম্বর, ২০১৪

বিয়ের পূর্বে ফিট থাকতে সহজ কিছু ডায়েট - তরুণ তরুণীদের জন্য বিশেষ টিপস

বিয়ের আগে নিমন্ত্রন, বন্ধুদের সাথে ঘোরাফেরা ইত্যাদি নানা কারনে প্রচুর খাওয়া দাওয়া হয়। প্রত্যেকের শারীরিক গঠন অনুযায়ী ডায়েট চার্ট ও ফিটনেস প্ল্যান মানা উচিত। আপনি যদি খুব রোগা হন বা অতিরিক্ত ওজনের সমস্যা থাকে তা হলে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে খাওয়া দাওয়া ও ব্যায়াম করুন। কীভাবে ডায়েট ও ফিটনেস প্ল্যান করলে ফিট থাকতে পারবেন জেনে নিন।
বিয়ের পূর্বে ফিট থাকতে সহজ কিছু ডায়েট টিপস
  • বিয়ের একমাস আগে থাকেই নিজের ওজন নিয়ন্ত্রনে রাখার চেষ্টা করুন। একমাসে মাঝেমধ্যে একদিন বেশি খেয়ে ফেললে চিন্তার কোন কারন নেই। ভাত ও রুটির পরিমান একটু কমিয়ে দিন সালাদ বেশি করে খান। ব্যায়াম করার সময় একটু বাড়িয়ে দিন।
  • বাইরে খাওয়া দাওয়া করলে সাথে সালাদ খাওয়ার চেষ্টা করুন। ডুবো তেলে ভাজা খাবার থেকে বিরত থাকুন। 
  • সারাদিন বাইরে থাকতে হলে ড্রাই ফ্রুটস সাথে নিয়ে নিন। হেলদি স্ন্যাকস হিসেবে ভালো হবে। জাঙ্ক ফুড খাওয়ার প্রবণতা কমে যাবে। বাইরের কোন খাবার খেলে প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন। সারাদিনে খুব বেশি চা বা কফি না খাওয়াই ভালো।
  • নানা রকমের সবজির তরকারি রাখুন খাদ্য তালিকায়। আলুর সাথে অন্যান্য সবজিও যেন যথেষ্ট পরিমানে থাকে সেদিকে নজর রাখুন। দুপুর ও রাতের খাবারে বেশি করে সবজি রাখুন।
  • একই ধরনের ফল খেতে বিরক্ত লাগতে পারে। তাই সব রকমের ফল খেতে পারেন।
  • প্রতি খাবারের সাথে সালাদ খাওয়ার চেষ্টা করুন। ফিট তো থাকবেনই, সাথে ত্বক, চুল ও নখও ভালো থাকবে।
  • ভাত বা রুটি যেকোন একটি বেছে নিন। ভাত ও রুটি একসাথে খাবেন না। প্রোটিন জাতীয় খাবারের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য।
  • রাতে অন্তত ৮ ঘণ্টা ঘুমানোর চেষ্টা করুন।
  • সপ্তাহে তিন দিন যোগব্যায়াম করুন ও ৬ দিন ৩০-৪০ মিনিট করে ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ করুন।
  • শরীরের পাশাপাশি ত্বকের যত্ন নিতেও ভুলে যাবেন না। মাসে একবার প্রফেশনাল ফেসিয়াল করিয়ে নিলে আপনার ত্বকের জন্য ভালো হবে।
  • নারীদের ক্ষেত্রে কোন প্রকার স্ত্রীরোগ এবং পুরুষদের ক্ষেত্রে কোন প্রকার যৌন সমস্যা থাকলে রেজিস্টার্ড একজন হোমিও চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
বিস্তারিত

বৃহস্পতিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৪

এক চুমুতে মুখের মধ্যে প্রবেশ করে ৮ কোটি ব্যাকটেরিয়া - কি বলছে গবেষণা ?

চুমুতে ভালবাসা বাড়ে, ভালবাসা ছড়ায় জানাছিল, কিন্তু চুমুর মধ্যে দিয়ে ব্যাকটেরিয়ার আদানপ্রদান হয় তা কি জানা আছে? নতুন এক গবেষণা বলছে মাত্র ১০ সেকেন্ডের গভীর চুমুতে ৮ কোটি ব্যাকটেরিয়া একজনের লালার সঙ্গে অন্যজনের মুখে প্রবেশ করে। যে যুগল দিনে যতবার বেশি চুমু খায় তাদের মুখের মধ্যের মাইক্রোব্যাকটেরিয়ার তত বেশি মিল থাকে।
বিস্তারিত