পুরুষের স্বাস্থ্য লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান
পুরুষের স্বাস্থ্য লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান

রবিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০১৮

সারা জীবনের জন্যে একবারই ব্য়ায় করুন, আপনাকে আর কোনদিন সেক্স এর ঔষধ খেতে হবে না

আজকাল ইন্টারনেটের অনেক স্থানেই এই প্রকার বিজ্ঞাপন দেখা যায় -
সারা জীবনের জন্যে একবারই ব্য়ায় করুন, আপনাকে আর কোনদিন সেক্স এর ঔষধ খেতে হবে না, Guaranteed!!!
ইন্টারনেটে এই প্রকার বিজ্ঞাপন দেখেই যদি আপনি ৬০০০ (৬ হাজার) থেকে ১০০০০ (১০ হাজার) টাকার ঔষধ কিনে খেতে আরম্ভ করেন তাহলে আপনি মরলেন বৈকি এর বেশি কিছু নয়। আজকাল অনলাইনে এই প্রকারের বিজ্ঞাপনের ছড়াছড়ি।  যদি সতর্ক না হোন, তাহলে এই প্রকার ঔষধ খেয়ে আপনি শুধু টাকাই খোয়াবেন না সাথে সাথে যৌন ক্ষমতাও হারাতে পারেন। 
সারা জীবনের জন্যে একবারই ব্য়ায় করুন, আপনাকে আর কোনদিন সেক্স এর ঔষধ খেতে হবে না
প্রাকৃতিক হারবাল ঔষধের দোহাই দিয়ে তারা আপনার দুর্বল মানুষিকতার সুযোগ নিবে আর এর জন্য তারা আপনাকে যা যা বলবে তা হল ---
  • স্বতেজ এবং লোহার মত শক্ত লিঙ্গ
  • ১০ থেকে ৩০ মিনিট কিংবা ততোধিক সেক্স করার ক্ষমতা
  • এক রাতে একাধিক বার সেক্স করার ক্ষমতা
  • দ্রুত বীর্যপাত থেকে চীরস্থায়ী মুক্তি!
  • যৌন মিলনের সময় লোহার মত শক্ত লিঙ্গ (অনুভুতি হীন নিস্তেজ লিঙ্গ থেকে স্থায়ী মুক্তি) 
  • খাওয়ার তালিকা, যেই খাওয়ার গুলো আপনার যৌনজীবন ধরে রাখবে আজীবন ( ১০০% প্রাকৃতিক এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত) 
  • খাওয়ার তালিকা, যেই খাওয়ার গুলো আপনার অজান্তেই আপনার যৌনশক্তি শেষ করে দিচ্ছে 
  • যেই সকল খাওয়ার খেলে আপনার সিমেন এর পরিমাণ বাড়বে এবং প্রাকৃতিকভাবে ঘন হবে
  • যৌন মিলনের উত্তম উপায় – স্টেপ বাই স্টেপ – আপনার সঙ্গীর প্রথম অর্গাজম হবে সেক্স শুরুর 30 সেকেন্ড এর মধ্যে (Guranteed!), আপনার অনুভুতী হবে বীরের মত!!!
  • যৌনমিলনে ‍অনাগ্রহ সমস্যা থেকে মুক্তি
  • অনলাইন কোর্স অনুযায়ী নিয়মিত ব্যেয়াম করলে লিঙ্গ বড় হবে এবং বাকা লিঙ্গ সোজা হবে
মনে রাখবেন এই গুলি বলে তারা আপনার মন দুর্বল করবে এবং মানুষিক ভাবে দুর্বল হলে আপনি এই সকল মাদক শ্রেণীর ঔষধ খেতে শুরু করবেন। 

মনে রাখা ভালো, যেকোন সমস্যায় একমাত্র প্রপার চিকিৎসাই পারে সেটিকে একেবারে রুট লেভেল থেকে নির্মূল করতে। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।
বিস্তারিত

শুক্রবার, ৭ আগস্ট, ২০১৫

তরুণদের মাঝে দিন দিন যৌন অক্ষমতা ও যৌন বিকৃতি বাড়ছে !! কিন্তু কেন ?

আজকাল ইন্টারনেটে, ফেইসবুকে নানা প্রকার অশ্লীল বা চিত্তাকর্ষক যৌন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে (পুরুষাঙ্গ বড় করা, মিলনে সময় বৃদ্ধি করার) লোভ দেখিয়ে মারাত্মক ক্ষতিকর উত্তেজক জাতীয় ঔষধ বিক্রির মাধ্যমে কিছু প্রতারক তরুনদের যৌন বিকৃতি এবং দিন দিন যৌন ক্ষমতায় অক্ষম করে তুলছে।

মনে রাখবেন এই সকল যৌন উত্তেজক ঔষধ পুরুষদের যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধিতে কোনো ভুমিকাই পালন করে না। কিছু সময়ের জন্য উত্তেজনা সৃষ্টি করে মাত্র। ......যা আপনার মধ্যে যৌন বিকৃতি সৃষ্টি করবে এবং এক সময় আপনাকে যৌন ক্ষমতায় পুরুপুরি অক্ষম করে তুলবে।
তরুণদের মাঝে দিন দিন যৌন অক্ষমতা ও যৌন বিকৃতি বাড়ছে !! কিন্তু কেন ?
সাবধান !!!!!! ইন্টারনেটে, ফেইসবুকে যৌন রোগের (পুরুষাঙ্গ বড় করা, মিলনে সময় বৃদ্ধি করার) নাম করে বিজ্ঞাপন দেয়া এই সকল প্রতারকদের পাল্লায় পরবেন তো ধ্বংস হয়ে যাবেন। খুব অল্প বয়সেই আপনি আপনার যৌবন হারাবেন। একটি কথা মনে রাখবেন, ন্যাচারাল পুরুষাঙ্গ কখনোই বড় করা যায় না। যারা এই সকল বিজ্ঞাপন দেয় তারা আপনার দুর্বল মানসিক অবস্থার সুযোগ নিয়ে আপনার সাথে প্রতারণা করছে মাত্র। অথচ পুরু ক্ষতিটা আপনারই হচ্ছে। তাই, যে সকল প্রতারক কমলমতি তরুনদের লোভ দেখিয়ে বিভ্রান্ত করছে এবং তাদের ক্ষতি করে যাচ্ছে তাদের থেকে সাবধান হোন ।

হারবাল, কবিরাজি, ইউনানী, ন্যাচারাল ইত্যাদির নাম দিয়ে যারাই আপনাকে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাওয়ার কথা বলবে, মনে রাখবেন আপনি প্রতারিত হচ্ছেন। আজকাল হারবাল, কবিরাজি, ইউনানী, ন্যাচারাল এই শব্দগুলি যৌন উত্তেজক ঔষধ বিক্রি করার ক্ষেত্রে একটি ফেশন হয়ে দাড়িয়েছে। অথচ এই সকল উত্তেজক ঔষধগুলির অধিকাংশতেই মাদক মেশানো হয় যা কিছু সময়ের জন্য দ্রুত উত্তেজনার সৃষ্টি করে থাকে। কিন্তু এর সুদূর প্রসারী ফলাফল অনেক ভয়ানক। এক সময় আপনি দূরারোগ্য কিডনি এবং লিভার রোগে আক্রান্ত হবেন যা আপনার মৃত্যু ডেকে আনার জন্য যথেষ্ট।

তবে একথা সত্য যে বিশুদ্ধ আয়ুর্বেদ >> এক্ষেত্রে ভালো কাজ করে কিন্তু এগুলিও তাৎক্ষণিক উত্তেজনা সৃষ্টি করে না আর দেশের আয়ুর্বেদিক কোম্পানীগুলি তাদের সুনাম ধরে রাখার জন্য ভাল মানের ঔষধ প্রস্তুত করে থাকেন। তাই এ দেশে আয়ুর্বেদ আজও জনপ্রিয়। তবে স্ত্রীরোগ এবং পুরুষদের যৌন সংক্রান্ত যেকোন সমস্যা স্থায়ী ভাবে নির্মূলে হোমিওপ্যাথি সমগ্র বিশ্বে সর্বশ্রেষ্ঠ আসন দখল করে আছে।

মনে রাখবেন, যৌনশক্তি বৃদ্ধির জন্য কোনো প্রকার ঔষধ খাওয়ার প্রয়োজন নেই। একবার চিন্তা করুন, ছোট থেকে আপনি যৌবনে প্রদার্পন করলেন কোন সময় এই সকল ঔষধ খাওয়ার দরকার পড়ে নাই, আর তখন আপনার যৌনশক্তি ঠিকই ছিল, অথচ এই সকল প্রতারকদের বিজ্ঞাপন দেখেই আপনার যৌন শক্তির ঔষধ খেতে মন চাইল। কেন ?? সাবধান !!

তবে এটা ঠিক বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সচেতনতার অভাবে মানুষের শরীরে নানা প্রকার রোগ বাসা বাধতে থাকে এবং তার সাথে সাথে মানুষের জীবনী শক্তিও কমতে থাকে যা মানুষকে যৌনতায় দুর্বল করে তুলে। কিন্তু এর জন্য যদি আপনি যৌন উত্তেজক ঔষধ খেতে থাকেন তাহলে আপনি আরো মরলেন। এটা আদৌ দরকার নেই। মনে রাখবেন যৌন শক্তিটাও আপনার শরীরেরই একটি অংশ। তাই আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার শারীরিক ফিটনেস ঠিক আছে কিনা ? নিয়মতান্ত্রিক জীবনযাপন করেন কিনা ? সারাদিন কাজ করে শরীরের যে পরিমান ক্ষয় করেন সেই পরিমান শক্তি পূরণের জন্য পর্যাপ্ত সুষম খাদ্য গ্রহণ করেন কিনা ?

আপনি যদি নিয়মিত হাটেন এবং শরীরে কোনো প্রকার রোগকে বাসা বাধতে না দেন, নিয়মিত দুধ, ডিম, মধু এবং অন্যান্য পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ করেন, তাহলে মনে রাখবেন আপনি কখনই যৌন দুর্বলতায় ভুগবেন না। এটা প্রমানিত সত্য এবং বাস্তব কথা।

সব শেষে একটি কথা..... যৌনতা নিয়ে এত চিন্তা করার দরকার নেই। আপনি আপনার কাজে কর্মে মনোযোগী হন। আপনার যৌন সংক্রান্ত কোন প্রকার সমস্যা হলে অভিজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন। এক্ষেত্রে হোমিও হলে সবচেয়ে ভালো। কিন্তু বিজ্ঞাপন দেখে লোভে পড়ে নিজে নিজে যৌন উত্তেজক ঔষধ কিনে খেয়ে খেয়ে আপনার যৌন জীবন বিপর্যস্থ করে তুলবেন না। কারণ এইগুলি খেতে থাকলে কিডনি, লিভার ইত্যাদি বিকল হতে থাকবে এবং এক সময় তা আপনার মৃত্যু পর্যন্ত ডেকে আনবে।
বিস্তারিত

বুধবার, ১০ জুন, ২০১৫

লোভে পড়ে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাবেন না, যৌন ক্ষমতায় অক্ষম হয়ে যেতে পারেন।

রাস্তাঘাটে চলতে ফিরতে এই রকম ডায়ালগ হরহামেশাই আপনার কানে আসবে, অথবা এই রকম পোস্টার  দেয়ালে দেয়ালে চোখে পড়বে -  আপনি কি দাম্পত্য জীবনে অসুখী ? লিঙ্গ ছোট, নিস্তেজ, দূর্বল, স্ট্রং হয় না, ১-২ মিনিটে বীর্যপাত হয়ে যায়? যে সমস্ত ভাইরা দীর্ঘ দিন বিদেশ থাকার সময়ে বিভিন্ন খারাপ অভ্যাস এর কারনে যৌন শক্তি নষ্ট করে ফেলেছেন, স্ত্রীর নিকট লজ্জা পাচ্ছেন বা বিয়ে করতে ভয় পাচ্ছেন ? যৌন রোগ, লিঙ্গ সমস্যা, শুক্রমেহ, স্বপ্নদোষ ও দ্রুত বীর্যপাত এর চিকিৎসা, পুরষ লিঙ্গ লম্বা/মোটা, স্ট্রং করতে চান ? যৌন শক্তি বৃদ্ধি করে এক রাতে ২/৩ বার মিলন করতে চান ? বীর্য গাড় করে প্রসাবে ধাতু ক্ষয় দূর করতে চান ? 
লোভে পড়ে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাবেন না, যৌন ক্ষমতায় অক্ষম হয়ে যেতে পারেন।
হারানো যৌবন পুনুরুদ্ধার করে নারী কে সন্তুষ্ট করতে চান ? অল্প উত্তেজনায় যাদের লিঙ্গের মাথায় লালা চলে আসে এবং আপনারা যারা পুরুষত্ব হিনতা, জন্ডিস, অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ, অসময়ে বীর্য পাত, মেয়েদের সাদা স্রাব, লিঙ্গের আগা মোটা গোরা চিকন ও অন্যান্য যৌন রোগের সঠিক সমাধান পেতে চান তারা আজই যোগাযোগ করুন.......

এই সকল ভুয়া বিজ্ঞাপন দিয়ে হর হামেশাই প্রতারিত করা হচ্ছে তরুণ যুবকদের। ডাক্তার নামধারী এক শ্রেনীর অসাধু লোক হারবাল ইউনানী চিকিৎসার নাম করে যৌন রোগের ভয় দেখিয়ে কোমলমুতি যুবকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা। অথচ দেখা যায় অনেকের কোনো প্রকার সমস্যা পর্যন্ত থাকে না। আবার কারো কারো সমস্যা থাকলেও এটা খুব সামান্য যা প্রপার হোমিও ট্রিটমেন্ট নিলে অল্প দিনের মধ্যে চিরতরে দূর হয়ে যায়। 
কিন্তু এক শ্রেনীর হারবাল ইউনানী নামধারী ভূয়া চিকিৎসক তরুনদেরকে যৌন রোগের ভয় দেখিয়ে বছরের পর বছর ধরে উত্তেজক ঔষধ খাওয়াতে থাকে। যা এক সময় ভয়ঙ্কর ক্ষতি ডেকে আনে। অনেকে যৌন ক্ষমতায় অক্ষম পর্যন্ত হয়ে পড়েন, কেউ কেউ আবার লিভার এবং কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়। তাই রাস্তা-ঘাট এবং ফুটপাত থেকে লোভে পড়ে এবং কানভাসারদের কথায় মুগ্ধ হয়ে যৌন উত্তেজক ঔষধ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। যদি আপনি প্রকৃতই কোনো সমস্যা অনুভব করে থাকেন তাহলে রেজিস্টার্ড এবং অভিজ্ঞ কোনো হোমিওপ্যাথি ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে যথাযথ ট্রিটমেন্ট নিন। 
উপরের ছবি গুলির মত দৃশ্য রাস্তাঘাটে চলতে গেলে সব সময়ই চোখে পড়ে। এক শ্রেনীর কিছু অসাধু লোক ডাক্তার সেজে শুধু মাত্র যৌন রোগেরই চিকিৎসা দিয়ে বেড়ায়।  অথচ বাংলাদেশের আইনে কেনভাস করে চিকিৎসা দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ। কিন্তু দেখা যায় অনেক যুবকরা লোভে পড়ে অথবা তাদের কথামালায় মুগ্ধ হয়ে এই সব মাদক শ্রেনীর যৌন উত্তেজক ঔষধ খেয়ে খেয়ে অকালেই তাদের যৌন ক্ষমতায় হারাচ্ছে। কেউ কেউ আবার বিরূপ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার শিকার হচ্ছেন। তাই হারবাল-ইউনানী নামধারী রাস্তা ঘাটের যৌন উত্তেজক ঔষধ ক্রয় করা থেকে বিরত থাকুন। সুখী  ও আনন্দময় যৌন জীবন লাভ করুন।
বিস্তারিত

শুক্রবার, ২৮ নভেম্বর, ২০১৪

সহবাস বা মিলনকালে পুরুষরা আত্মবিশ্বাস বাড়াবেন যে ভাবে

অনেক সময়ই দেখা যায় স্ত্রীকে সামনে পেয়ে মিলনকালে কনফিডেন্স হারিয়ে ফেলেন কিছু কিছু পুরুষ। এমনকী, যে নারীর কথা উত্তেজিত হন পুরুষেরা, অনেক সময় দেখা যায় তাঁকে একান্তে পেয়েও হতাশা-দ্বিধায় ভোগেন পুরুষেরা। কারণ, প্রথমত তিনি একটা বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেন না, যে তাঁর সঙ্গিনীকে সুখী করতে পারবেন কী না। ঘাবড়াবেন না। আপনার কনফিডেন্স বাড়ানোর জন্য রইল কিছু টিপস।
বিস্তারিত

বুধবার, ২৬ নভেম্বর, ২০১৪

সহবাস/যৌন মিলনে রতিসুখে বাধ সাধতে পারে বিরল অ্যালার্জি !

কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায়, শরীর, মন সাড়া দিলেও যৌন মিলনে প্রবল অনীহা সৃষ্টি হয়েছে। অস্বস্তিকর এই পরিস্থিতির পিছনে থাকতে পারে অ্যালার্জির আতঙ্ক। চিকিত্‍সা বিজ্ঞানীদের মতে, বীর্যের সংস্পর্শে এলে কিছু কিছু মহিলার ত্বকে বিভিন্ন উদ্ভট উপসর্গ দেখা দিতে পারে। এর ফলে ক্রমে সঙ্গমের নাম শুনলে ভীত হয়ে পড়েন তাঁরা।

মার্কিন যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্ড্রু ওয়েইল জানিয়েছেন, শুক্রের সংস্পর্শে এলে কিছু কিছু নারীর ত্বকে উল্লেখজনক পরিবর্তন ঘটে। সংখ্যায় এমন মহিলারা যদিও বিরল, তবু সমস্যাটি জটিল। সম্প্রতি ডক্টর ওয়েইলের কাছে আরেক যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ এমনই এক রোগীকে পাঠান। মহিলার দাবি, প্রণয়ীর সঙ্গে যৌন মিলনের সময় কোনও ভাবে যদি তাঁর ত্বকে বীর্যের ছোঁয়া লাগে, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে তীব্র চুলকানি, জ্বালা এবং প্রদাহ সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি এমনই দাঁড়ায় যে ধীরে ধীরে সঙ্গীর যৌন আহ্বানে সাড়া দিতে গেলে রীতিমতো আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন এই নারী।
সহবাস/যৌন মিলনে রতিসুখে বাধ সাধতে পারে বিরল অ্যালার্জি !
শুধু এই ক্ষেত্রেই নয়, এ ধরনের আরও কয়েকটি ঘটনার কথা জানতে পেরেছেন বলে দাবি ওয়েইলসের। তিনি জানিয়েছেন, উপরোক্ত সমস্যাগুলি ছাড়াও শুক্রের সংস্পর্শে এলে শ্বাসকষ্ট, যন্ত্রণাময় র‌্যাশের মতো উপসর্গেও ভুগতে পারেন অনেক মহিলা।

বিষয়টি খতিয়ে দেখতে কিছু দিন আগে মোট ১০৭৩ জন নারীর উপর সমীক্ষা চালানো হয়। দেখা গিয়েছে, এঁদের মধ্যে ১৩ শতাংশের ত্বকে সঙ্গীর দেহ নিসৃত বীর্যবাহিত অতিরিক্ত প্রোটিনের (হিউম্যান সেমিনাল প্লাজমা প্রোটিন) ছোঁয়া লাগে। প্রতিক্রিয়ায় ওই মহিলাদের ত্বকে তৈরি হয় এক বিশেষ অ্যান্টিবডি। সাধারণত বিশেষ এক সঙ্গীর সঙ্গে যৌন মিলনের ফলেই এই উপসর্গ দেখা দেয়। তবে কিছু কিছু মহিলার ক্ষেত্রে একাধিক পুরুষের শয্যাসঙ্গী হয়েও একই সমস্যা সৃষ্টি হয়। তবে চিকিত্‍সকরা জানাচ্ছেন, শরীরে অন্য অ্যালার্জির উপস্থিতি থাকলে এই প্রবণতা বাড়ে।

সমস্যার কারণ :- গবেষকদের বক্তব্য, এই সমস্ত মহিলার ত্বক বীর্যে উপস্থিত হিউম্যান সেমিনাল প্লাজমা প্রোটিনের সংস্পর্শে এলে অতিমাত্রায় সংবেদনশীল হয়ে ওঠে। তার ফলেই দেখা দেয় অস্বস্তিকর দৈহিক পরিবর্তন। অনেক সময় সঙ্গীর দেহে উপস্থিত কোনও অ্যালার্জি শুক্রের সাহায্যে নারীদেহে ছড়িয়ে পড়াও অসম্ভব নয় বলে তাঁদের মত। আবার, সঙ্গীর খাদ্যাভ্যাস বা নিয়মিত সেবন করা ওযুধের প্রতিক্রিয়াতেও অনেক সময় অ্যালার্জি সৃষ্টি হতে পারে।

সমস্যার সমাধান :- অভিজ্ঞ কোন হোমিও ডাক্তারের পরামর্শ নিন। একই সঙ্গে কন্ডোম ব্যবহার করাও বেশ সুফল দায়ক। তবে কোনো প্রকার অবহেলা না করে আপনার হোমিওপ্যাথের সাথে কথা বলুন। চিন্তার কারণ নেই; যথাযথ হোমিও ট্রিটমেন্ট নিলে খুব শিগ্রই এই সমস্যা দূর হয়ে যায়।
বিস্তারিত

সোমবার, ১০ নভেম্বর, ২০১৪

মূত্রনাশ বিকার বা ইউরিমিয়া (Uraemia) নির্মূলে হোমিওপ্যাথি কার্যকর

মূত্রগ্রন্থি দ্বারা যে সকল দূষিত পদার্থ সুস্থাবস্থায় শরীর হতে বের হয়ে থাকে তা যদি মূত্রের সঙ্গে নির্গত না হয়ে রক্তের মধ্যে সঞ্চালিত হয় তবে ইহাকে মূত্রনাশ বিকার বা ইউরিমিয়া (Uraemia or Uremia) বলা হয়। ইহাতে প্রস্রাব বা মূত্র রোধ এবং রক্ত দুষ্টির কতগুলো উপসর্গ ঘটে। এই উপসর্গগুলি ধীরে ধীরে অথবা হঠাৎ আবির্ভূত হতে পারে এবং রোগীকে সংকটজনক অবস্থায় ফেলতে পারে। তাই রোগের উপসর্গ প্রকাশ পাওয়া মাত্রই রেজিস্টার্ড একজন হোমিও ডাক্তারের শ্মরনাপন্ন হওয়া উচিত।
মূত্রনাশ বিকার বা ইউরিমিয়া (Uraemia) নির্মূলে হোমিওপ্যাথি কার্যকর
এই জাতীয় রোগে আক্রান্ত রোগীর মধ্যে কতগুলো বিশেষ লক্ষণ প্রকাশ পায় যেমন - মূত্ররোধ, মূত্র সল্পতা, শোথ, বমন, বমন ইচ্ছা, ভয়ংকর মাথার যন্ত্রণা, মাথা ঘোরা, প্রবল আক্ষেপ আবার কখনো বা প্রলাপসহ আচ্ছন্নভাব অচেতন নিদ্রা অর্থাৎ কমা দেখা দেয়। তাই সকল লক্ষণের সাথে শ্বাস কস্ট, নিঃশ্বাসের সঙ্গে হিস হিস শব্দ, শ্বাসে এমোনিয়ার মত গন্ধ প্রভৃতি লক্ষণও বর্তমান থাকে।

কোন কোন ক্ষেত্রে এই রোগের সঙ্গে পরিপাক ক্রিয়ার গোলযোগ থাকতে পারে। বলতে গেলে এটি অতি ভয়ঙ্কর প্রকৃতির রোগ বিশেষ। রোগীর মুখমন্ডল মলিন এবং কমল দেখায়। নাড়ী দ্রুত চলতে থাকে। শরীরের উষ্ণতা প্রথমে বর্ধিত হয় পরে ধীরে ধীরে কমতে থাকে এবং স্বাভাবিক তাপমাত্রার চেয়েও কমে যায়। অনেক সময় এটি বিপদজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। তাই যথাসময়ে প্রপার হোমিও ট্রিটমেন্ট নেয়া জরুরি।
বিস্তারিত

রবিবার, ৯ নভেম্বর, ২০১৪

স্ত্রীলোক ও পুরুষদের কামোন্মাদনা (Nymphomania) - কারণ, লক্ষণ, চিকিত্সা

যৌন বিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করার সময় আমরা দেখেছি স্ত্রীলোকের কামোন্মাদনার (Nymphomania) সমস্যাটিকেও অনেক যৌন বিশেষজ্ঞ বেশ গুরুত্বের সাথেই তুলে ধরেছেন। তবে এটি পুরুষদের মধ্যেও দেখা যায়। আধুনিক যৌন বিজ্ঞান ইহাকে একটি বিশেষ রোগ বলে চিহ্নিত করেছে। বাস্তবিকও তাই। "আধুনিক হোমিওপ্যাথি ঢাকা" তে বেশ কয়েকজন রোগিনীকে সফল হোমিও চিকিত্সা দিয়ে আমরা আরোগ্যও করছি। কিন্তু একটি বিষয় লিক্ষনীয় যে, এই রোগটির প্রতি অনেক ডাক্তারই ততটা মনোযোগ দেন না। দেশের প্রখ্যাত হোমিওপ্যাথ এবং "আধুনিক হোমিওপ্যাথি ঢাকা" এর চিকিৎসক ডাক্তার হাসান তার কেইস স্টাডিতে বলেন, স্ত্রীলোকের ক্ষেত্রে সমস্যাটির পেছনে রোগিনীর বেশ কিছু শারীরিক কারণও বিদ্যমান থাকে। তাই সেদিকে যথাযথ দৃষ্টি রেখে রোগিনীর চিকিৎসা করা প্রয়োজন। তিনি বলেন - প্রপার ট্রিটমেন্ট করা না হলে এর ফলে কিছু দূরারোগ্য ব্যাধিরও সৃষ্টি হতে পারে।
বিস্তারিত