রবিবার, ৩১ আগস্ট, ২০১৪

খারাপ বৈবাহিক সম্পর্ক আপনাকে সহজেই অসুস্থ্য করে তুলতে পারে !

ডিবরা উম্বারসন যিনি ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাসের সমাজবিজ্ঞানের অধ্যাপক তার এবং তার অন্য সহযোগী অধ্যাপকগনের জার্নাল অব সোস্যাল বিহেভিয়র এ প্রকাশিত এক গবেষনায় দেখা গেছে শক্তিশালী সামাজিক বন্ধনের সাথে সুস্বাস্থ্যের অনেক সংযুক্তি রয়েছে। ভাল স্বাস্থ্যের জন্য বিবাহ হচ্ছে সবছে ভাল সামাজিক আত্মীয়তার বন্ধন। বিবাহের সাথে শাররীক সুস্থ্যতা নির্ভর করার মানে এটা নয় যে, অবিবাহিত থাকার চেয়ে বিবাহ করা উত্তম। শুধুমাত্র বিবাহ ভাল স্বাস্থ্যের নিয়ামক নয় – এর জন্য অবশ্যই স্বামী-স্ত্রীর সু-সম্পর্ক জরুরী।
উম্বারসন এবং তার দল ১,০৪৯ জন বিবাহিত যুগলের ব্যাক্তিগত জীবনের তথ্য সংগ্রহ করেন ১৯৮৬, ১৯৮৯ এবং ১৯৯৪ সালে। অংশগ্রহনকারীগন তাদের স্বস্থ্য এবং বিবাহিত জীবনের মান এর বিস্তারিত তথ্য প্রদান করেন। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে তারা বলেন, “বিবাহিতদের মাঝে – দূর্দশাগ্রস্ত সম্পর্কের মানুষের স্বাস্থ্য সুসম্পর্কযুক্ত যুগলের তুলনায় খারাপ। গবেষনার ফলাফলে আরো বলা হয় – খারাপ সর্ম্পকের বিবাহিত যুগলের স্বাস্থ্য ঝুকি ডিভোর্সড যুগলের চেয়ে অনেক মাত্রায় বেশি; বিশেষ করে বৃদ্ধ বয়সে।”

বৈবাহিক মান এর সাধারন জ্ঞানমুলক প্রশ্নমালা :-
  • আপনার বিবাহে আপনি কতটা খুশি?
  • আপনার স্বামী/স্ত্রী আপনাকে কতটা ভালবাসে এবং আপনার প্রতি কতটা যত্নশীল বলে আপনার ধারনা?
  • আপনি যখন আপনার সমস্যা এবং চিন্তার কথা আপনার সঙ্গীকে বলতে চান – তখন তা শুনতে সে কতটা আগ্রহ দেখায়?
  • কত সময় ব্যভধানে আপনার মনে হয় “বৈবাহিক সম্পর্ক বিরক্তিকর” অথবা “বিয়েটি আপনার জন্য বিপর্যয় ঢেকে এনেছে”?
  • আপনার কি মনে হয় আপনাদের সম্পর্ক অপ্রিয় এবং আপনাদের মাঝে অনেক মানসিক অমিল?
দুর্বল বৈবাহিক সম্পর্ক – দুর্বল স্বাস্থ্য :-
স্বাস্থ্য সম্পর্কে নিজের মুল্যায়ন সব সময় একই প্রকার থাকেনা। সব যুবক-যুবতী সুস্বাস্থ্যের অধিকারী আবার সব বৃদ্ধ বয়সীরা দুর্বল তা কিন্তু নয়। বিবাহিত সম্পর্কে যারা বেশি অসুখী তাদের স্বাস্থ্যের মান নিন্মমুখী। আবার যাদের পারিবারীক বন্ধন বিশ্বাসপুর্ন তাদের ক্ষেত্রে সুস্বাস্থ্যের সাথে বয়সের তারতম্যে কোন পার্থক্য পরিলক্ষীত হয়নি।

অসুখী মানুষের বৃদ্ধবয়সে স্বাস্থ্যঝুকি বাড়ার কিছু কারন হতে পারে :-
  • বছরের পর বছর পারিবারিক অশান্তি মানসিক চাপ সৃষ্টি করে; যার ফলে বয়সের সাথে সাথে তারা অন্যদের তুলনায় বেশি অসুস্থ থাকেন। 
  • বয়স মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার দুর্বল করে দেয়। দুশ্চিতা তাই সহজে বয়স্কদের ঘায়েল করে। যা হার্ট এ্যটাক এর ঝুকি বাড়ায়। 
  • বয়স্ক মানুষ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে পরিবারকেন্দ্রিক হয়ে যান। সমাজের সাথে সম্পর্ক কমে যাবার কারনে সাংসারিক অশান্তি নানান রোগের উপশর্গ দেখা দেয়। 

আধুনিক হোমিওপ্যাথি, ঢাকা

Dr. Abul Hasan; DHMS (BHMC)
Bangladesh Homoeopathic Medical College and Hospital, Dhaka
যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১ এবং ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫
ইমেইল: adhunikhomeopathy@gmail.com
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক

Back to Top